বৈশ্বিক মন্দার পরেও বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার উজ্বল থাকবে - Jamuna.News
ব্রেকিং নিউজ

বৈশ্বিক মন্দার পরেও বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার উজ্বল থাকবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা: বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নিয়ে নতুন পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। বিশ্বব্যাংক আভাস দিয়েছে, বৈশ্বিক মন্দার পরেও বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার উজ্বল থাকবে হবে। সংস্থাটি আভাস দিয়েছে বৈশ্বিক মন্দার মধ্যেও অগ্রগতি ধরে রাখবে বাংলাদেশ।
বিশ্বব্যাংক বলছে,. ২০২৩ সালের মধ্যে প্রবৃদ্ধি কিছুটা কমবে। ২০২১–২২ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৬ দশমিক ৪ শতাংশ। পরবর্তী অর্থবছর অর্থাৎ ২০২২-২৩-এ প্রবৃদ্ধির হার ৬ দশমিক ৯ শতাংশ হবে। ২০২২ সালে বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধির হার কমে হতে পারে ৪ দশমিক ১ শতাংশে নেমে আসতে পারে। ২০২৩ সালে তা আরও কমে ৩ দশমিক ২ শতাংশে নেমে আসতে পারে। তারপরও বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি অর্জনের হার উজ্বল থাকবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

সূত্রমতে, করোনা মহামারি সংকটে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হ্রাস পেয়েছে। ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের ফলে আগামী দিনে বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি ভয়াবহ ঝুঁকির মধ্যে পড়তে যাচ্ছে।

বুধবার বিশ্বব্যাংকের ওয়াশিংটন কার্যালয় থেকে পাঠানো ‘গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস ২০২২’ বা বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সম্ভাবনা শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে। প্রবৃদ্ধির হার কমবে দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলেও। ২০২৩ সালে প্রবৃদ্ধির হার কমে হবে ৬ শতাংশ। অথচ ২০২২ সালে প্রবৃদ্ধির হার প্রাক্কলন করা হয় ৭ দশমিক ৬ শতাংশ। দক্ষিণ এশীয়ায় তৃতীয় সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বাংলাদেশ। এই অঞ্চলে শীর্ষ স্থানে উঠে আসবে মালদ্বীপ। ২০২১-২২ অর্থবছরে ১১ এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে দেশটি ১২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে।

তবে প্রবৃদ্ধি অর্জনে দক্ষিণ এশীয়ায় মাইনাস ৭ দশমিক ৩ শতাংশ থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসবে ভারত। ২০২১-২২ অর্থবছরে ভারতে প্রবৃদ্ধির হার হবে ৮ দশমিক ৩ শতাংশ। আর ২০২১-২২ অর্থবছরে ভুটনের প্রবৃদ্ধির হার হবে ৫ দশমিক ১ শতাংশ, পরের বছরের অর্জন ৪ দশমিক ৮ শতাংশ। ২০২১-২২ অর্থবছরে নেপাল ৩ দশমিক ৯ শতাংশ এবং পরের বছর ৪ দশমিক ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে। ২০২১-২২ অর্থবছরে পাকিস্তানের প্রবৃদ্ধির হার হবে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ এবং পরের বছর ৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হবে। দক্ষিণ এশীয়ায় খারাপ অবস্থানে শ্রীলঙ্কা ও আফগানস্তান।

গত বছরের জুন মাসে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নিয়ে পূর্বাভাস দিয়েছিল বিশ্ব ব্যাংক। তবে জানুয়ারি মাসে সেটা বৃদ্ধি করেছে। চলতি অর্থবছরের জন্য তারা প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস বৃদ্ধি করেছে ১ দশমিক ৩ শতাংশ এবং আগামী অর্থবছরের জন্য বৃদ্ধি করেছে শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ।

Print Friendly, PDF & Email