লিটনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পরও ইনিংস ব্যবধানে হারলো বাংলাদেশ - Jamuna.News
ব্রেকিং নিউজ

লিটনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পরও ইনিংস ব্যবধানে হারলো বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক : ডান-হাতি ব্যাটার লিটন দাসের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পরও সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের তৃতীয় দিন নিউজিল্যান্ডের কাছে ইনিংস ও ১১৭ রানে ব্যবধানে হারলো সফরকারী বাংলাদেশ। লিটন ১০২ রান করেন।

সিরিজের প্রথম জয়ী হওয়ায় দুই ম্যাচের সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করলো টাইগাররা। প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। সূত্র: বাসস

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অর্ন্তভুক্ত এটিসহ ৪ ম্যাচে ১ জয় ও ৩ হারে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে থাকলো বাংলাদেশ।

ক্রাইস্টচার্চে প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেটে ৫২১ রান করে নিউজিল্যান্ড। এরপর নিজেদের প্রথম ইনিংসে দ্বিতীয় দিন ১২৬ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ৩৯৫ রানে পিছিয়ে ফলো-অনে পড়ে আজ, তৃতীয় দিনের শুরুতে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে টাইগাররা।

ইনিংসের শুরু থেকে ব্যাট হাতে দারুণ সতর্ক ছিলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাইম। নিউজিল্যান্ডের বোলারদের সামনে প্রতিরোধ গড়ে কোন বিপদ ছাড়াই ১৩ ওভার কাটিয়ে দেন তারা। স্কোর বোর্ডে রান উঠে ২৭। ১৪তম ওভারে বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটিতে ভাঙ্গন ধরান নিউজিল্যান্ডের পেসার কাইল জেমিসন।

জেমিসনের লেগ সাইডের বল ফ্লিক করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন সাদমান। টম ব্লান্ডেলের হাতে ধরা পড়ার আগে ৪৮ মোকাবেলায় ৩ বাউন্ডারিতে ২১ রান করেন সাদমান।

দলীয় ১০৫ রানে তৃতীয় ব্যাটার হিসেবে আউট হন নাইম। এরপর ২৩ রানের ব্যবধানে প্যাভিলিয়নে ফিরেন অধিনায়ক মোমিনুল হক ও ইয়াসির আলি। ওয়াগনারের অফ স্টাম্পের বাইরের বল খেলতে গিয়ে প্রথম স্লিপে টেইলরকে ক্যাচ দেন ৬৩ বল খেলে ৪ বাউন্ডারিতে ৩৭ রান করা মোমিনুল।

১২৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে, যখন দ্রুত গুটিয়ে যাবার পথে ছিঠকে পড়ে বাংলাদেশ, তখনই উইকেটরক্ষক নুরুল হাসানকে নিয়ে উইকেট বাঁচানোর লড়াই শুরু করেন লিটন। নুরুলকে নিয়ে চা-বিরতিতে যান লিটন। তখন দলের রান ৫৩ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫২। লিটন ২৩ ও নুরুল ৬ রানে অপরাজিত ছিলেন। বিরতির আগ মুর্হূতে ওয়াগনারকে অনায়াসে তিনটি বাউন্ডারি মেরেছেন লিটন।৭৩তম ওভারে ওয়াগনারকে ২টি চার মেরে নব্বইয়ের ঘরে পার রাখেন লিটন। আর ৭৪তম ওভারে জেমিসনের প্রথম তিন বলে যথাক্রমে ২,২ ও ৪ রান নিয়ে ৯৮ রানে পৌঁছে যান লিটন। চতুর্থ ডেলিভারিতে ২ রান নিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। ১০৫ বলে তিন অংকে পা রাখেন।

৮০তম ওভারে বিদায়ী টেস্ট খেলতে নামা টেইলরের হাতে বল তুলে দেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টম লাথাম। ২০১৩ সালে সর্বশেষ বাংলাদেশের বিপক্ষেই টেস্টে বল করেছিলেন টেইলর। নিজের প্রথম ওভারের তৃতীয় বলেই বাংলাদেশের শেষ উইকেট তুলে নিউজিল্যান্ডের জয় নিশ্চিত করেন টেইলর। এবাদতকে আউট করেন। বাংলাদেশের ইনিংস শেষ হয় ২৭৮ রানে।
কিউইদের পক্ষে ৪ উইকেট নেন কাইল জেমিনসন, ৩ উইকেট নেন নিল ওয়াগনার ও ১টি করে উইকেট নেন টিম সাউদি, ড্যারেল মিচেল এবং রস টেইলর।

১১২ ম্যাচের টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয় উইকেটের দেখা পেলেন টেইলর। আগের ২টি ভারতের বিপক্ষে। টেইলর ছাড়াও নিউজিল্যান্ডের জেমিসন ৪টি, নিল ওয়াগনার ৩টি উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন লাথাম। আর সিরিজ সেরা কনওয়ে।

Print Friendly, PDF & Email