ইভ্যালি পণ্য না দেয়ায় ​আত্মহত্যার হুমকি - Jamuna.News
ব্রেকিং নিউজ

ইভ্যালি পণ্য না দেয়ায় ​আত্মহত্যার হুমকি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা : ই-কমার্স কোম্পানি ইভ্যালিতে অর্ডারকৃত পণ্য সময়মত না পেয়ে কেএম ধ্রুব নামের এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন। তিনি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার শুভ গ্রামের ওবায়দুল হকের ছেলে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আপলোড করা এক ভিডিওতে ধ্রুব বলেন, একজন শিক্ষার্থী হিসেবে নিজের উপার্জিত টাকায় গিফট কার্ড অর্ডার দিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি। তার ওপর প্রতিনিয়ত বাসায় এবং আশপাশের মানুষের কথা শুনতে হচ্ছে। এরকম মানসিক দুরবস্থার মধ্যে আমি কখনো পড়িনি। আমি নিজের সঙ্গে পেরে উঠছি না। যদি শুনতে পান আমি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছি, তাহলে বুঝবেন এর জন্য সম্পূর্ণ দায়ী ইভ্যালি।

জানা গেছে, গত ২৪ মে গিফট কার্ডের জন্য ১৯ হাজার ৫০০ ও ১৪ এপ্রিল কোমল পানীয় পেপসির জন্য ৬০০ টাকা ডিজিটাল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’ এর মাধ্যমে ইভ্যালিকে দেয় ধ্রুব। মোট ২০ হাজার ১০০ টাকা দেয়ার পর নির্ধারিত সময় পার হলেও পাননি অর্ডার করা পণ্য। তার অভিযোগ, ইভ্যালির হেলপলাইনে যোগাযোগ করেও পাননি কোনো সহযোগিতা।

আরো জানা গেছে, বর্তমানে ইভ্যালির সম্পদের পরিমাণ ৬৫ কোটি ১৮ লাখ টাকা। অন্যদিকে প্রতিষ্ঠানটির দায় ৪০৭ কোটি ১৮ লাখ টাকা। এর মধ্যে গ্রাহকদের কাছ থেকে অগ্রিম হিসেবে নেয়া দায় প্রায় ২১৪ কোটি টাকা। আর মার্চেন্টদের কাছে ইভ্যালির দায় ১৯০ কোটি টাকা। দুদকের হিসাবে স্বাভাবিক নিয়মে ইভ্যালির কাছে ৪০৪ কোটি টাকার সম্পদ থাকার কথা। কিন্তু ইভ্যালির কাছে চলতি সম্পদ রয়েছে মাত্র ৬৫ কোটি ১৮ লাখ টাকার, যা দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি তার চলতি দায়ের বিপরীতে মাত্র ১৬ দশমিক ১৪ শতাংশ গ্রাহককে পণ্য সরবরাহ করতে পারবে।

দুদক বলছে, তদুপরি গ্রাহক ও মার্চেন্টদের কাছ থেকে গৃহীত ৩৩৯ কোটি টাকার কোনো হদিস খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে এই টাকা সম্পূর্ণভাবে আত্মসাৎ অথবা অন্যত্র সরিয়ে ফেলার সম্ভাবনা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email