বন্ধ হউক শ্বশুর বাড়ীর ইফতারী নামক 'কু-প্রথা' - Jamuna.News
ব্রেকিং নিউজ

বন্ধ হউক শ্বশুর বাড়ীর ইফতারী নামক ‘কু-প্রথা’

গাজী জাবের আহমদ : সামাজিক যেকোন অসংগতি নিয়ে যখন সমস্বরে ঐক্যবদ্ধ ভাবে প্রতিবাদ শুরু হয় তখন বিষয়টা সমাজে নাড়া দেয়। যেরকমটা হয়েছে এইবার রমজানের শুরু থেকে এপর্যন্ত। শ্বশুরবাড়ীর ইফতারী নামক কুপ্রথার বিরুদ্ধে এই বার সর্বমহল থেকে প্রতিবাদের ঝড় এসেছে এবং আশা করছি এই প্রতিবাদ চলমান থাকলে অচিরেই মারাত্বক এই ব্যাধিটি সমাজ থেকে বিতাড়িত হবে ইনশাআল্লাহ্‌।

প্রিয় পাঠকবৃন্দ, প্রতিবাদ আমরা অনেকেই করছি, আবার সামাজি দ্বায়বদ্ধতার কারনে এই কুপ্রথার অত্যাচার নীরবে হজমও করেছি অনেকে। কেউ কেউ আবার মনও খারাপ করেছি একারনে যে, আমরা কি তাহলে বোন ভাগ্নিকে কিছু দিতে পারবনা? এই বিষয়টি নিয়ে আমরা যারা বিভিন্ন মাধ্যমে প্রতিবাদ করছি তাদের একটা বিষয় পরিস্কার করা উচিৎ বলে মনে করছি, যেটা হচ্ছে বোন, ভাগ্নি, ভাতিজি কিংবা মেয়েকে সানন্দে সামান্য কোন কিছু দেওয়াকে আমরা কোন অবস্থাতেই ‘কু-প্রথা’ বলছিনা বরং এটি আত্নীয়তার বন্ধনকে আরও দৃঢ় করে। কুপ্রথা আমরা সেটাকেই বলছি যেটা আমরা শ্বশুর বাড়ী থেকে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ ভাবে চেয়ে নিচ্ছি কিংবা তাদেরকে দিতে বাধ্য করছি।

সহজ কথায় যদি বলি আমরা দেওয়াটাকে নিরুৎসাহিত করছিনা আমরা নেওয়াটাকেই নিরুৎসাহিত করছি। নেওয়াটা যদি বন্ধ হয় একসময় দেখবেন অপারগতার দেওয়াটাও বন্ধ হয়ে যাবে।এক্ষেত্রে অবশ্যই ছেলে পক্ষকে সামাজিক সকল সংকোচ এড়িয়ে শক্ত ভূমিকা রাখতে হবে।তাহলে একটু বেশী সময় লাগলেও একটা সময় ঠিকই এই কুপ্রথাটির বিলুপ্তি হবে ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ যেনো সবাইকে বুঝার তৌফিক দেন আমীন।

(লেখক : ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক।)

Print Friendly, PDF & Email