ব্রেকিং নিউজ

মালয়েশিয়ায় বন্ধ শ্রমবাজার দ্রুত খোলার সিদ্ধান্ত

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি : মালয়েশিয়ায় বন্ধ শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে একমত হয়েছে উভয় দেশ। চলতি বছরের ডিসেম্বরেই দেশটিতে কর্মী পাঠাতে আগ্রহী বাংলাদেশ। এর অংশ হিসেবে চলতি মাসের ২৪ ও ২৫ নভেম্বর ঢাকায় আসছে মালয়েশিয়ার একটি প্রতিনিধি দল। ঢাকাতে তারা জয়েন্ট ওয়ার্কিং সভায় মিলিত হবেন।

বুধবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারানের সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

বৈঠকে মন্ত্রীর সাথে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, অতিরিক্ত সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, যুগ্ম-সচিব ফজলুল করিম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মো. আজিজুর রহমান, বিএমইটির পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম, হাইকমিশনার মুহ. শহীদুল ইসলাম এবং কাউন্সিলর (শ্রম) মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

দুই দেশের প্রতিনিধি দলের এ বৈঠকে শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। বৈঠক সূত্রে জানা যায়, নূন্যতম অভিবাসন ব্যয়ে কর্মী প্রেরণ, উভয়দেশের রিকুটিং এজেন্সিদের সম্পৃক্ততার পরিধি, মেডিকেল পরীক্ষা এবং কর্মীরা সামাজিক ও আর্থিক সুরক্ষা ডাটা শেয়ারিং বিষয়ে ফলফসু আলোচনা হয়। আলোচনায় উভয় মন্ত্রী বন্ধ শ্রমবাজার দ্রুততম সময়ে ঐক্যমত পোষণ করেন।

বিশেষ করে ন্যূনতম অভিবাসন ব্যয়ে কর্মী প্রেরণ এবং কর্মীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা বিড়ম্বনা নিরসনের জন্য বাংলাদেশ থেকে বহির্গমনের পূর্বে মাত্র একবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার বিষয়ে উভয় পক্ষ একমত হন।

এ প্রসঙ্গে মালয়েশিয়া বাংলাদেশী কর্মীদের চাহিদা কথা বিশেষ ভাবে উল্লেখ করা হয়। জানা গেছে, শ্রমিক নেওয়া বিষয়ে চলতি মাসের ১১ তারিখ মালয়েশিয়ার নিয়োগদাতাদের সাথে বৈঠক করবেন দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী এম কুলাসেগারান।

চলতি বছরের ১৪ মে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী (তখন প্রতিমন্ত্রী) ইমরান আহমদ মালয়েশিয়া সফরে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তানশ্রি মুহিউদ্দিন ইয়াসিন ও মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারানের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকের অগ্রগতি হিসেবে ২৯ ও ৩০ মে মালয়েশিয়ায় দুই দেশের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের আরেকটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

Print Friendly, PDF & Email