ব্রেকিং নিউজ

নিউইয়র্কে খোকার জানাজায় প্রবাসীদের ঢল

নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) প্রতিনিধি : বাংলাদেশের বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এবং বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার নামাজে জানাজা নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার স্থানীয় সময় বাদ এশা জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ইমাম আবু জাফর বেগ জানাজায় ইমামতি করেন।

জানাজা শেষে মুক্তিযোদ্ধা কামাল সাইদ মোহন এবং আবদুল মুকিত চৌধুরীর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা বাংলাদেশের লাল সবুজ পতাকা মুড়িয়ে খোকাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এর আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন সাদেক হোসেন খোকার দুই সন্তান এবং বিএনপি নেতা আবদুস সালাম। বক্তব্যে সাদেক হোসেন খোকা পুত্র প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন সবার কাছে পিতার জন্য দোয়া চান এবং সাদেক হোসেন খোকা ও তার স্ত্রীর ট্রাভেল ডকুমেন্ট ইস্যু করায় সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

এর পরপরই নিউ ইয়র্কে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন ফাস্ট সেক্রেটারি শামীম হোসেন। নিজের বক্তব্যে তিনি সাদেক হোসেন খোকাকে মুক্তিযোদ্ধা এবং কোনো রাজনৈতিক পরিচয় না দেওয়ায় তাৎক্ষণিক হট্টগোল শুরু হয়। প্রায় ১৫ মিনিট যাবত বিএনপি নেতাকর্মী ও প্রবাসীরা এর প্রতিবাদ জানাতে থাকে।

পরিস্থিতি শান্ত করতে মসজিদের ইমাম ও বিএনপি নেতাদের ভীষণ বেগ পেতে হয়। এক পর্যায়ে সাদেক হোসেন খোকার পুত্র প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন সবাইকে শান্ত থাকার অনুরোধ জানালে পরিস্থিতি শান্ত হয়। জানাজায় নিউ ইয়র্কের সর্বস্তরের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন রাজ্য থেকে আসা রাজনৈতিক দলের নেতা, সাংবাদিক, মুক্তিযোদ্ধা এবং ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের প্রবাসীরা অংশ নিয়েছেন।

জানাজা শেষে আবারও সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ মর্গে রাগা হয়। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত ১১টায় এমিরেটসের ফ্লাইট-২০২তে করে সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ দেশে পাঠানোর কথা রয়েছে। লাশের সঙ্গে দেশে ফিরবেন খোকার দুই পুত্র এবং স্ত্রী। জানাজায় বিএনপি নেতাদের মধ্যে আব্দুল লতিফ, মিজানুর রহমান ভূঁইয়া মিল্টন, জিল্লুর রহমান জিল্লু, গিয়াস আহমেদ এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও দলের অনেক নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

এর আগে গত রবিবার (৩ নভেম্বর) স্থানীয় সময় দিবাগত রাত ২টা ৫০ মিনিটে ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোয়েন ক্যাটারিং ক্যানসার হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বাংলাদেশের এই বীর মুক্তিযোদ্ধা। চিকিৎসার জন্য নিউ ইয়র্ক সফরে থাকা খোকার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ১৮ অক্টোবর তাকে এ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email